রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:০৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :

বাড়ল গ্যাসের দাম, প্রজ্ঞাপন জারি

  • আপডেট : বুধবার, ১৮ জানুয়ারী, ২০২৩
  • ৮২৩ পড়া হয়েছে
স্টাফ রিপোর্টারঃ সরকারের নির্বাহী আদেশে বিদ্যুতের পর বাড়ানো হলো এবার গ্যাসের দাম। বুধবার (১৮ জানুয়ারি) দুপুরে দাম বৃদ্ধির প্রজ্ঞাপন জারি করেছে জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগ। ‘বিল মাস’ ফেব্রুয়ারি থেকেই নতুন এই দাম কার্যকর হবে। তবে আবাসিক, সিএনজি ও চা শিল্পের গ্যাসের দাম বাড়েনি, এসব খাতে সরবরাহকৃত গ্যাসের দাম আগের মতোই রাখা হয়েছে। দাম বেড়েছে বিদ্যুৎ, শিল্প ও বাণিজ্যিক খাতে।প্রজ্ঞাপনে জানানো হয়, বিদ্যুৎকেন্দ্রের জন্য প্রতি ঘনমিটার গ্যাসের দাম ৫ টাকা ০২ পয়সা থেকে বাড়িয়ে ১৪ টাকা করা হয়েছে। ক্যাপটিভ বিদ্যুৎকেন্দ্রের জন্য ১৬ টাকা থেকে বাড়িয়ে করা হয়েছে ৩০ টাকা। আর সার কারখানার জন্য বাড়ানো হয়নি, সেটি আগের মতো অর্থাৎ ১৬ টাকাই রয়েছে।
শিল্প-কারখানার ক্ষেত্রে বৃহৎ শিল্পে প্রতি ঘনমিটার গ্যাসের দাম ১১ টাকা ৯৮ পয়সা থেকে বাড়িয়ে ৩০ টাকা করা হয়েছে। মাঝারি শিল্পে ১১ টাকা ৭৮ পয়সা থেকে বাড়িয়ে ৩০ টাকা এবং ক্ষুদ্র শিল্পে ১০ টাকা ৭৮ পয়সা থেকে বাড়িয়ে ৩০ টাকা করা হয়েছে।বাণিজ্যিক গ্রাহকদের (হোটেল, রেস্তোরাঁ) ক্ষেত্রে প্রতি ইউনিটের দাম ২৬ টাকা থেকে বাড়িয়ে করা হয়েছে ৩০ টাকা। তবে সিএনজি স্টেশনে গ্যাসের দাম আগের মতোই প্রতি ঘনমিটার ৪৩ টাকা থাকছে।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, বিদ্যুৎ, শিল্প ও বাণিজ্যিক খাতে গ্যাসের দাম বাড়ায় জনজীবনে সরাসরি প্রভাব না পড়লেও পরোক্ষভাবে এর প্রভাব পড়বে। এদিকে সরকার বলছে, এই দাম বৃদ্ধির ফলে তাদের ভর্তুকি কমবে। বিশেষ করে আন্তর্জাতিক বাজারে এলএনজি কিনতে গিয়ে পেট্রোবাংলা আর্থিক সংকটে রয়েছে। এই সংকট কাটিয়ে ওঠার জন্য সরকার আইএমএফ-এর কাছ থেকে ঋণ নিচ্ছে। আইএমএফ ঋণ ছাড়ের আগেই ভর্তুকি কমানোর শর্ত দিয়েছিল। সরকার ভর্তুকি কমাতে গ্যাসের দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

ভোক্তা পর্যায়ে সবশেষ গ্যাসের দাম বাড়ানো হয়েছিল গত বছরের ৪ জুন। এর আগে ২০১৮ সালের শেষভাগে এলএনজি আমদানির সময় থেকে সরকারের খরচ বাড়তে শুরু করে এবং তখন এই ঘাটতি পূরণ করতে গ্যাসের দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেয় সরকার।

আরও পড়ুন >    বঙ্গবন্ধু টানেল উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

বিইআরসি গণশুনানি করে গ্যাসের দাম বাড়ালেও এবারই প্রথম সরকারের নির্বাহী আদেশে দাম বাড়ানো হলো। এতদিন গ্যাস ও বিদ্যুতের দাম নির্ধারণ করতো বিইআরসি একাই। গত ১০ জানুয়ারি বিশেষ প্রেক্ষাপটে বিদ্যুৎ, জ্বালানি তেল ও গ্যাসের দাম নির্ধারণ, পুনর্নির্ধারণ এবং সমন্বয়ে সরাসরি সরকারের হস্তক্ষেপের সুযোগ রেখে ‘বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (সংশোধন) আইন ২০২৩’-এর খসড়ায় চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। এর পরপরই গত ১৩ জানুয়ারি প্রজ্ঞাপন জারি করে বিদ্যুতের দাম বাড়ায় বিদ্যুৎ বিভাগ। আর আজ  ১৮ জানুয়ারি বাড়লো গ্যাসের দাম।

এদিকে আবাসিকে এবার গ্যাসের দাম বাড়ানো হয়নি, সেটি আগের মতোই রয়েছে। রান্নার গ্যাসের জন্য দুই চুলার (ডাবল বার্নার) মাসিক বিল ১০৮০ টাকা, এক চুলার মাসিক বিল ৯৯০ টাকাই রয়েছে। আর প্রিপেইড মিটারে প্রতি ইউনিট ১৮ টাকা।

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর
স্বত্ব © ২০২৪ সাপ্তাহিক আড়াইহাজার
Theme Customized By BreakingNews