বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ১২:৫২ পূর্বাহ্ন

এমপি বাবু শেখ হাসিনার স্বপ্ন বাস্তবায়িত করছেন: পানি সম্পদ উপমন্ত্রী

  • আপডেট : মঙ্গলবার, ২৪ আগস্ট, ২০২১
  • ১১০৭ পড়া হয়েছে

স্টাফ রির্পোটার: নারায়াণগঞ্জ জেলার আড়াইহাজার উপজেলা প্রশানের উদ্যেগে আয়োজিত পৌরসভার কোভিড-১৯ এ কর্মহীন, ক্ষতিগ্রস্থ, দুস্থ্য ও অসহায়পরিবারের মাঝে ত্রান সামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে পানি সম্পদ উপমন্ত্রী এ কে এম এনামুল হক শামীম এমপি বলেছেন, আমি আসলাম আড়াইহাজারে কিন্তু আড়াইহাজারকে চেনাই আমার জন্য মুশকিল। কারন আজ থেকে ২০ বছর আগের আড়াইহাজার আর এখনকার আড়াইহাজার এক নয়। আমার গ্রাম আমার শহর শেখ হাসিনার সেই শ্লোগানকে বাস্তবায়িত করছেন আপনাদের নেতা নজরুল ইসলাম বাবু। রাস্তা-ঘাট, ভবন, শহীদ মিনার, লাইব্রেরী, ডাকবাংলা আছে। তিনি রাস্তাঘাটের উন্নয়ন করছেন, কত সুশৃঙ্খল দল। আমার এলাকায় ডাক বাংলা নেই কিন্তু আপনাদের এখানে জেলার চেয়েও সুন্দর উন্নত ডাক বাংলা আছে। বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম বাবুর ছাত্র রাজনীতির গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাস আছে। গ্রেনেড হামলায় সেদিন বাবু আমি সহ আমরা অনেকেই আহত হয়েছিলাম। শিকদার হসপিটালে চিকিৎসা নেয়ার পর আমরা ভারতের এ্যাপোলো হসপিটালে চিকিৎসা নিয়ে এসেছি। বাবুসহ আমাদের সবারই সেই গ্রেনেডের স্প্রিন্টার বয়ে বেড়াতে হবে। সেই নেতার হাতে জননেত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পতাকা তুলে দিয়েছেন আড়াইহাজারবাসীর সেবা করার জন্য।

মঙ্গলবার (২৪ আগস্ট) দুপুর ১২টায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: সোহাগ হোসেনের সভাপতিত্বে প্রধান আলোচক ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ-২(আড়াইহাজার) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব নজরুর ইসলাম বাবু। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, আড়াইহাজার উপজেলা চেয়ারম্যান মুজাহেদুর রহমান হেলো সরকার ও আড়াইহাজার পৌর মেয়র সুন্দর আলী প্রমুখ।

পানি সম্পদ উপমন্ত্রী বক্তব্যে বলেন, জেলা প্রশাসন পুলিশ প্রশাসন সহ আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ সহ সবাই করোনা কালে কাজ করে যাচ্ছে। একটি দল তার মহাসচিব টেলিভিশনে অনেক কথা বলে কিন্তু করোনার মধ্যে দেশের কোথাও একদিনও বিএনপিকে দেখা যায়নি। যারা মানুষের বিপদে থাকে না তাদের বাংলায় রাজনীতি করার কোন অধিকার নেই। গনঅভ্যুত্থানের কথ বলেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। গণধিকৃত দল দিয়ে গণঅভ্যুত্থান সম্ভব নয়। বিএনপি আজকে গণধিকৃত দল।

তিনি আরও বলেন, হাওয়া ভবন করে ওই তারেক জিয়ারা হাজার হাজার কোটি টাকা মানি লন্ডারিং করেছে। আপনাদের নেতা নেতৃদের পায়ের তলায় মাটি নেই। তারা দুর্নীতিতে নিমজ্জিত। বিরোধী দলে থেকে পেট্রোল বোমা দিয়ে মানুষ মেরেছেন। বাংলাদেশে গণঅভ্যুত্থান করবেন । আপনাদের নেত্রী খালেদা জিয়া জেলে একদিন একটা বড় মিছিলও করতে পারলেন না। আপনারা গণঅভ্যুত্থানের ভয় দেখান। মীর্জা ফখরুল সাহেব আওয়ামী লীগের শেকড় অনেক গভীরে। আওয়ামী লীগকে কেউ ইচ্ছে করলেই ধাক্কা দিয়ে ফেলতে পারবে না। গণঅভ্যুত্থান হয়েছিল ৬৯-এ বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে। পূর্ব বাংলার সাড়ে সাত কোটি মানুষ তার সাথে ছিল। গনঅভ্যুত্থান হয়েছিল ৯০ এ এবং ১৫ ফেব্রুয়ারির প্রহসনের নির্বাচনের পরে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে। গণঅভ্যুত্থান করতে সংগঠনের শক্তি লাগে মানুষের ভালবাসা লাগে জনগনের সম্পৃক্ততা লাগে।

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর
স্বত্ব © ২০২৪ সাপ্তাহিক আড়াইহাজার
Theme Customized By BreakingNews