রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:০৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :

আড়াইহাজারে ডিবি পরিচয়ে চাঁদা দাবি, গ্রেফতার-৫

  • আপডেট : রবিবার, ১ আগস্ট, ২০২১
  • ১১২৯ পড়া হয়েছে

আড়াইহাজার প্রতিনিধি: নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে ডিবি পরিচয়ে এক মহিলার কাছে চাঁদা দাবী করায় মহিলা সহ ৫ জনকে গণপিটুনী দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে জনতা। ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার রাতে উপজেলার পাল্লা এলাকায়। তাদেরকে চাঁদাবাজীর মামলা দিয়ে রোববার কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে। এদের মধ্যে সোহেল নামে একজন মীরপুর জোনের পুলিশের এমএলএসএস রয়েছে।

আটককৃত ৫ জন হলো, নেত্রকোনা জেলার কেন্দুয়া থানার বাট্টা বড়বাড়ী এলাকার শাহজাহানের ছেলে সোহেল রানা (৩৩), গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী থানার নোয়াপাড়া মোল্লাবাড়ী এলাকার রমজান আলী মোল্লার ছেলে রাজু মোল্লা ওরফে সুজন (৩৪), ও তার স্ত্রী মনি ইসলাম (৩৩), মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগর থানার আলমপুর উত্তরপাড়া এলাকার ওমর আলীর পুত্র শাহাদাত হোসেন সুমন (৩২), ঢাকার দক্ষিণখান এলাকার আতাউর রহমান বকুলের স্ত্রী তামান্না আক্তার (২৯) । তাদের সঙ্গে থাকা আতাউর রহমান বকুল নামে আরো একজন ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়।

পুলিশ জানায়, এরা যথাক্রমে ঢাকা মেট্রো গ ৩৪-০১৭১ এবং ঢাকা মেট্রো ঘ ১৮-৫২০১ এ দুইটি প্রাইভেট কার যোগে উক্ত ৬ ব্যাক্তি সন্ধ্যা ৬টার দিকে পাল্লা গ্রামের প্রবাসী আল আমিনের স্ত্রী রেখা আক্তারকে তার বাড়ীতে এসে ডিবি পুলিশের পরিচয় দিয়ে তাকে গ্রেফতারের হুমকী দিয়ে নগদ চার লাখ টাকা চাঁদা দাবী করে। এ সময় সোহেল নামে একজন পুলিশের পোষাক পরিহিত ছবি সহ কার্ড প্রদর্শণ করে। গৃহকর্তৃ রেখা আক্তার চাঁদা দিতে অস্বীকার করায় তারা তাকে মারধর করে। এ সময় রেখার ডাক চিৎকারে আশে পাশের লোকজন জড়ো হয়ে তাদেরকে গণপিটুনী দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে। এ ঘটনায় রেখা আক্তার বাদী হয়ে আড়াইহাজার থানায় ৬জনের নাম উল্লেখ করে একটি চাঁদাবাজীর মামলা দায়ের করেছেন।

আরও পড়ুন >   আড়াইহাজারে ধর্ষণের পর শিশু হত্যার অভিযোগ

আড়াইহাজার থানার ভারপ্রাপ্ত ওসি আনিচুর রহমান মোল্লা জানান, আসামীদের ৫ জনকে গ্রেফতার করে কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে। পলাতক আনসামীকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর
স্বত্ব © ২০২৪ সাপ্তাহিক আড়াইহাজার
Theme Customized By BreakingNews