রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:০২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :

আড়াইহাজারে পরকীয়ার জেরে প্রবাস ফেরা স্বামীর বিশেষ অঙ্গ কর্তন

  • আপডেট : বৃহস্পতিবার, ৪ মে, ২০২৩
  • ৯১৮ পড়া হয়েছে
আড়াইহাজার প্রতিনিধিঃ নারায়ণগঞ্জ জেলার আড়াইহাজার উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়নের সিঙ্গারপুর গ্রামে পরকীয়ার জেরে দেশে ফেরা মালয়েশিয়া প্রবাসী স্বামীর বিশেষ লিঙ্গ কেটে ৭ দিন ঘরের ভিতরে জিম্মি করে রাখার অভিযোগে দায়েরকৃত মামলায় স্ত্রীসহ পরিবারের ৪ জনকে গ্রেফতার করে করেছে পুলিশ। মামলায় অভিযুক্তরা হলেন- স্ত্রী মনিরা, তার বাবা মনু মিয়া, মা জোসনা বেগম ও ভগ্নিপতি জাহাঙ্গীর।

বুধবার (৩ মে) তাদেরকে নারায়ণগঞ্জ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। এর আগে, গত ২৭ মার্চ রাতে উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়নের সিঙ্গারপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

মামলা সূত্রে জানা যায় যে, সিঙ্গারপুর গ্রামের মৃত হোসেন আলীর ছেলে ফারুকের (৩৫) গত ১৫ বছর আগে একই গ্রামের মনু মিয়ার মেয়ে মনিরা আক্তারের সাথে বিয়ে হয়। এরপর ফারুক মালয়েশিয়া প্রবাসে চলে যান। তাদের ১৩ বছর বয়সের এক ছেলে আছে। এদিকে স্ত্রী মনিরা একই গ্রামের আব্দুলের ছেলে ছানাউল্লার সাথে পরকিয়ায় জড়িয়ে পড়ে তাকে বিয়ে করে। গত ঈদুল আজহার পর ফারুক দেশে এসে মনিরাকে আবার সংসারে ফিরিয়ে আনেন।

স্ত্রী ও শ্বশুরবাড়ীর লোকজনের পরামর্শে ফারুক নিজের টাকা খরচ করে শ্বশুর বাড়ীতে বাড়ি নির্মাণ করে সেখানে সংসার করতে থাকেন।

পরকীয়া প্রেমিকার কাছ থেকে নিয়ে এসে সংসার করার ক্ষোভে গত ২৭ মার্চ রাতে স্ত্রী মনিরা আক্তার ধারালো ব্লেড দিয়ে স্বামীর লিঙ্গ কর্তণ করে পরিবারের লোকজন নিয়ে ফারুককে ৭ দিন ধরে ঘরের ভিতরে জিম্মি করে রাখে। বুধবার সকালে ফারুক কৌশলে বের হয়ে এসে থানায় অভিযোগ করলে পুলিশ মামলা গ্রহণ করে মনিরা সহ তার পিতা মনু মিয়া, মাতা জোসনা ও ভগ্নিপতি জাহাঙ্গীরকে গ্রেফতার করে নারায়ণগঞ্জ আদালতে প্রেরণ করে।

আরও পড়ুন >   আড়াইহাজারে গরু বাহী ট্রলি নিয়ন্ত্রন হাড়িয়ে কিশোর নিহত

আড়াইহাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইমদাদুল হক তৈয়ব জানান, থানায় মামলা হয়েছে। ৪ আসামিকে গ্রেফতার করে কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে।


আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর
স্বত্ব © ২০২৪ সাপ্তাহিক আড়াইহাজার
Theme Customized By BreakingNews